প্রকাশের সময়:
শনিবার ৫ জুন ২০২১ ০২:০৯:০০অপরাহ্ন

মিন্টুর রাজত্ব কার দখলে যাচ্ছে ?

১৬ নম্বর চকবাজার ওয়ার্ডে উপনির্বাচন

ফারুক মুনির   >>

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) ১৬ নম্বর চকবাজার ওয়ার্ডে যে কোনো সময় ভোট গ্রহণের তারিখ ঘোষণা হতে পারে বলে জানিয়েছেন আঞ্চলিক নির্বাচনী কর্মকর্তা মো. হাসানুজ্জামান।

তিনি বলেন, স্থগিত হওয়া বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ, পৌরসভার ভোট গ্রহণের রোড ম্যাপ ঘোষণা হয়েছে। কাউন্সিলর সাইয়্যেদ গোলাম হায়দার মিন্টুর মৃত্যুতে শূন্য হওয়া পদের নির্বাচনের তফসিলও যে কোনো সময় ঘোষণা করা হবে।

রেকর্ড ৭ বার ওই ওয়ার্ড থেকে জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হওয়া সাইয়্যেদ গোলাম হায়দার মিন্টুর উত্তরসূরি হতে মাঠে আছেন ডজনখানে প্রার্থী। মিন্টুর রাজত্বে শেষপর্যন্ত কে বসতে যাচ্ছেন সময় হলেই উত্তর মিলবে।

২৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছিলেন মরহুম সাইয়্যেদ গোলাম হায়দার মিন্টু। তার সম্মানে সেসময় দলের অনেকেই দলীয় মনোনয়ন না চাইলেও এবার দলীয় মনোনয়ন পেতে দৌড়ে আছেন জয়নগরের স্থায়ী বাসিন্দা নাজিম উদ্দিন। বাকলিয়া সরকারি স্কুল ছাত্রলীগের আহ্বায়কের দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে তার রাজনীতিতে হাতেখড়ি। ছিলেন সরকারি সিটি কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতিও। এরপর ইউনিট, ওয়ার্ড পর্যায়ে দায়িত্বপালন করে বর্তমানে আছেন চকবাজার থানা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের পদে।

নগর আওয়ামী লীগের প্রয়াত সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী এনামুল হক দানুর সন্তান কাজী রাজেশ ইমরানও আছেন মনোনয়ন দৌড়ে। তিনি নগর যুবলীগের আহ্ববায়ক কমিটির সদস্য এবং মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড, চট্টগ্রাম মহানগর শাখার সদস্য সচিব।

চকবাজার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সদ্য প্রয়াত সভাপতি আবদুর রহমানের সন্তান সেলিম রহমানও দলীয় মনোনয়ন চাইবেন। তিনি রাউজান নোয়াপাড়া ডিগ্রি কলেজ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে ছাত্র রাজনীতিতে প্রবেশ করেন। বর্তমানে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এবং আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ চট্টগ্রাম নগর শাখার যুগ্ম আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করছেন। তার এক ভাই আমিনুল ইসলাম চকবাজার ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি আরেক ভাই মুজিবুর রহমান রাসেল চকবাজার ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক।

দল থেকে মনোনয়ন চাইবেন আলোচিত-সমালোচিত যুবলীগ নেতা নুর মোস্তাফা টিনু। টিনু অস্ত্রসহ র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হয়ে প্রায় দেড় বছর কারাভোগ করে সম্প্রতি ছাড়া পেয়েছেন। টিনু নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সাবেক প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসির অনুসারী হিসেবে পরিচিত। ছাত্রলীগের নগর কমিটি, চকবাজার থানা, ওয়ার্ড, চট্টগ্রাম কলেজ ও মহসিন কলেজ কমিটিতে তার অনুসারী বেশ কিছু নেতা-কর্মীও আছে।

দলের মনোনয়ন চাইবেন চকবাজার ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কায়সার আহমেদ, ক্রীড়া ও সামাজিক সংগঠক আলী আকবর হোসেন চৌধুরী মিন্টু, গতবারের বিদ্রোহী প্রার্থী দেলোয়ার হোসেন ফরহাদসহ প্রায় ডজনখানেক নেতা। সবাই চকবাজার ওয়ার্ড এলাকায় পোস্টার, ফেস্টুন, ব্যানার সাঁটিয়ে ওয়ার্ডবাসীকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন, দোয়া প্রার্থনা করছেন।

এর বাইরেও গত নির্বাচনে বিএনপির  প্রার্থী একে এম সালাউদ্দীন কাউসার লাভুও আছেন। জানতে চাইলে নগর বিএনপি নেতারা জানান, নির্বাচনে ভোট প্রয়োগের কোনো পরিবেশ নেই। উপ-নির্বাচন নিয়ে তাদের আগ্রহ নেই।

সরকারি দলের সমর্থন না পেলেও প্রার্থীদের প্রায় সবাই মাঠে থাকার সিদ্ধান্তে অটল। প্রার্থীরা মহানগর নিউজকে বলেন, গত নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে আট প্রার্থী কাউন্সিলর নির্বাচিত হয়েছেন। দল তাদের বিষয়ে সাংগঠনিক ব্যবস্থা গ্রহণের কথা বললেও সবাই সপদে বহাল আছেন। তবে দলীয় সূত্র বলছে, প্রার্থীরা সবাই ‘ঘরের ছেলে’হওয়ায় উপনির্বাচনের মাঠ উন্মুক্ত রাখা হতে পারে।

জানতে চাইলে নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও চসিকের সাবেক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন বলেন, নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হলে নগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ সিদ্ধান্ত নিবো। সেখানে যদি কাউকে দলীয় প্রার্থী ঘোষণার সিদ্ধান্ত হয় হবে, না হয় উন্মুক্ত থাকবে।

কেডি



আরও খবর