প্রকাশের সময়:
মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ ০৫:৩৬:০০অপরাহ্ন

চকরিয়ায় বিদ্রোহী প্রার্থীর বিরুদ্ধে আ.লীগ প্রার্থীর মামলা

চকরিয়ায় বিদ্রোহী প্রার্থীর বিরুদ্ধে আ.লীগ প্রার্থীর মামলা

কক্সবাজার প্রতিনিধি »

কক্সবাজারের চকরিয়া-পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য জাফর আলমের ভাইপো ও চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনের মেয়র পদের আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী জিয়াবুল হকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী।

নৌকার নির্বাচনী প্রচারণায় হামলার অভিযোগে মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) চকরিয়া থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

মামলার প্রধান আসামি  জিয়াবুল হক চকরিয়া পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের বাজারপাড়ার কাহারিয়ার ঘোনার আবুল কালামের ছেলে ও  আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। এজাহারে জিয়াবুলসহ ১৭ জনের নাম ঠিকানা উল্লেখ করা হয়েছে। 

এ বিষয়ে নৌকার প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী বলেন, সোমবার বেলা দেড়টার দিকে চকরিয়া পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের রেইন কমিউনিটি সেন্টারের সামনে নৌকার সমর্থনে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছিলেন আমার কর্মী সবুজ চৌধুরী, রাজিব খান, রোপেচ খান ও অন্যান্যরা। এ সময় কোন কিছু বুঝে উঠার আগেই নারিকেল গাছ প্রতীকের মেয়র প্রার্থী জিয়াবুল হকের সমর্থক মিজানুর রহমান, রুবেল, দলিল, আব্দুল কাইয়ুম, শিব্বির আহামদ, হুমায়ুন কবির, হাসান আল বছরী, মো. শোয়াইব, মিজানুর রহমান, আব্দুল মজিদ, নুরুল আবচার, নুরুল হক, সাদ্দাম হোসেন, মিশুক, মো. পারভেজ, মো. ফেরদৌস ও তাদের সহযোগীরা অকথ্য ভাষায় গালাগাল করতে করতে আমার কর্মীদের ঘিরে ফেলে। এ সময় সন্ত্রাসীরা গুলি চালায় ও  আমার কর্মীদের মারধর করে। এমনকি সন্ত্রাসীরা আমার কর্মী সবুজ চৌধুরী, রাজিব খান ও রোপেচ খানের উপর বিদ্যুতের হিট দিয়ে পাশবিক নির্যাতনও চালায়। 

নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী আরও বলেন, আমি মেয়র হিসেবে গত ৫ বছর ধরে পৌর এলাকায় অভূতপূর্ব উন্নয়ন করেছি। তাই আমার জনপ্রিয়তায় ইর্ষান্বীত হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থীর সমর্থকরা সন্ত্রাসী কার্যক্রম চালাচ্ছে। 

মেয়র প্রার্থী জিয়াবুল হক বলেন, আলমগীর চৌধুরী প্রথম দফায় ভোট ডাকাতি করে মেয়র হয়েছে। এবার আমার জনপ্রিয়তা দেখে ভীত হয়ে গেছে। তাই আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিচ্ছে। মূলত মামলা দিয়ে তিনি ভোটের মাঠ খালি করতে চাচ্ছেন।  

চকরিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, নৌকার প্রার্থী বাদি হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। যাতে জিয়াবুলসহ ১৭ জনকে আসামি করা হয়েছে। তদন্তপূর্বক আসামিদের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মহানগর নিউজ/এসএ



আরও খবর